কালোজিরা তেলের উপকারিতা কি I Best black cumin

কালোজিরা তেলের উপকারিতা কি

সম্মানিত ভিজিটর ভাই ও বোনেরা যারা কমেন্ট করে জানতে চেয়েছেন তাদের জন্য আজকের আর্টিকেলটি আশা করি আপনাদের অনেক বেশি ভালো লাগবে এবং অনেক উপকার হবে। কালিজিরার তেলের উপকার কি শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায়, স্মৃতিশক্তি বৃদ্ধি, বুকের ব্যাথা জনিত সমস্যার আশঙ্কা কমায়, ত্বকের সুস্বাস্থ্য, আর্থাইটিস ও মাংসপেশির ব্যথা কমাতে কালিজিরার তেল উপযোগী। কালিজিরা শরীরের জন্য খুব জরুরি। পেটের যাবতীয় রোগ-জীবাণু ও গ্যাস দূর করে। চুলপড়া রোধ করতে সাহায্য করে থাকে।

আরো দেখুন : মসলার নাম রাঁধুনি কি

পদ্মা সেতু a to z

গোপন ক্যামেরা দাম ২০২২

প্রাচীন বাংলার জনপদ কতটি

ঢাকা থেকে বগুড়া কত কিলোমিটার

ল্যাংড়া আম চেনার উপায়

ঢাকা থেকে নওগাঁ কত কিলোমিটার

সীমান্ত এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী

বর্তমানে লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী

সকালে খালি পেটে খেজুর খাওয়ার উপকারিতা

বর্তমানে দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী

প্রতিদিন কয়টি লবঙ্গ খাওয়া উচিত

বর্তমানে রসুন খাওয়ার উপকারিতা কী

ওয়াল টাইলস ডিজাইন ২০২২

খুব সহজে হারানো মোবাইল ফিরে পাবেন

কালোজিরা তেলের উপকারিতা কি

কালোজিরা এক প্রকার মশলা জাতীয় খাদ্র দ্রব্য । কালোজিরা সমন্ধে মোটামুটি সবারই ধারনা আছে । আয়ুবেদীয় ঔষধ হিসাবে এই কালোজিরা ব্যবহার হয়ে থাকে । খাবারের স্বাদ বৃদ্ধিতে এই কালো জিরার ভুমিকা অনেক । শুধু মাত্র খাবারের স্বাদের কারণেই কালোজিরা ব্যবহার হয় না । ইহার অনেক গুন, বহুগুনে সমন্বিত এই উদ্ভিদ জাতীয় দ্রবটির । কালো চেনে না এমন লোক খুজে পাওয়া যাবে না । অনেক আগেই থেকেই আমরা জেনে আসছি কালোজিরা নানান রোগের প্রতিষেধক হিসাবে কাজ করে ।

চুলের জন্য মেথির উপকারিতা – কালোজিরা তেলের উপকারিতা কি

আজ আমরা জানব কালোজিরার বহু গুনের কথা । যেসব গুন কালোজিরার মধ্যে আছে আজকে তা আপনাদেরকে জানাব । কালোজিরা রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বাড়ায় অনেক গুন । নিয়মিত কালোজিরা খেলে শরীর সতেজ ও ভাল থাকে । কালোজিরা হজম শক্তিতে সাহায্য করে । প্রতিদিন কালোজিরা খালি পেতে খেলে অনেক উপকার পাওয়া যায় । তরিতরকারী বা সবজিতে কালোজিরা মিশেয়ে রান্না করলে রান্নার স্বাদ আনেক বৃদ্ধি পায় ।

চুল পড়া সমস্যায় এবং চুলের যত্নে মেথির ব্যবহার অত্যন্ত কার্যকরী। ৫০ গ্রাম মেথি ২০০-৩০০ মিলি পানিতে সারারাত ভিজিয়ে রেখে সকালে সেই পানিটুকু ছেঁকে নিন। এ থেকে এক গ্লাস পানি খালি পেটে পান করুন। মেথিতে প্রচুর পরিমাণে প্রোটিন ও নিকোটিনিক এসিড রয়েছে যা চুলকে ভেতর থেকে পুষ্টি যোগায় এবং চুলকে মজবুত করে।

আরো দেখুন : সেলাই মেশিন দাম ২০২২

আকিজ ফ্লোর টাইলস দাম ২০২২

এলজি ওয়াশিং মেশিন দাম ২০২২

কালোজিরার উপকারিতা কি কি

কালোজিরার ক্ষতিকর দিক গুলো কি

সিঙ্গার ফ্রিজ বাংলাদেশ প্রাইজ

শার্প ফ্রীজ দাম ২০২২

ওয়াল্টন রুম হিটার দাম ২০২২

এয়ার কুলারের দাম ২০২২

চুলে কালোজিরা তেলের উপকারিতা – কালোজিরা তেলের উপকারিতা কি

সর্দি কাশি থেকে আরাম পেতে কালো জিরার কালোজিরা খুবই উপকারী । সর্দি বা জ্বর হলে হালকা কাপড়ে কালো জিরার গন্ধ শুকলে খুবই আরাম ও উপকার হয় । হাপানী ও স্বাশ কষ্ঠের রোগিরা কালোজিরার তেল বা কালো জিরা খেলে যথেষ্ট উপকার পাবেন ইনশাহআল্লাহ । কালোজিরার তেল ব্যবহারে নতুন চুল গজায়। চুলের ফলিকগুলো শক্তিশালী করে। এই তেল প্রাকৃতিক ময়েশ্চারাইজার হিসেবেও কাজ করে। এ ছাড়াও মাথার ত্বকের শুষ্কতা কমায়, যার ফলে দ্রুত চুল পড়া বন্ধ হয়।

এ গেল রান্নার কথা । এবার জানব এর ঔষুধি গুনাগুন সমন্ধ্যে । শরীরে ব্যথা হলে কালোজিরার তেল খুবই উপকারী । ব্যথাময় স্থানে ভালভোবে পরিস্কার করে কালো জিরারতেল মাখলে ব্যথা নিরাময় হয় । কালোজিরার সাথে মধু মিশে এক সাথে খেলে শরীরের শক্তি বাড়ে এবং রোগ ব্যাধি থেকে মুক্তি পাওয়া যায় । পিঠের ব্যথা দুর করতে কালোজিরার তেল খুবই উপকারী । কথিত আছে কালোজিরা ও মধু একসাথে খেলে আর জীবনে কোন দিন ডাক্তারের কাছে যেতে হবে না । কালো জিরার অনেক গুন আমরা জানলাম ।

কালোজিরা তেলের দাম – কালোজিরা তেলের উপকারিতা কি

আপনি কি জানেন কালোজিরার তেলের দাম কত যদি না জেনে থাকেন তাহলে এখন জেনে নিতে পারেন জেনে নিলে যা হয়তো আপনাদের ক্রয় করার সময় বিশেষভাবে কাজে লাগবে। থামলে চলুন জেনে নেয়া যাক আদি কালোজিরার তেলের দাম ১৪০ টাকা ৬০মিলি। কালোজিরা ফুলের মধু ১০০মিলি দাম ১৫০ টাকা। কালোজিরা বীজ পাউডার ৭০ গ্রাম দাম ৫০ টাকা। কালোজিরা ফুলের মধু ৫০০ গ্রামের দাম ৫৫০ টাকা। প্রিয়নবী (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেন, ‘মধুতে আরোগ্য নিহিত আছে।’ (সহীহ বুখারি: ৫২৪৮)।

রাসুল (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়াসাল্লাম) বলেন, ‘যে ব্যক্তি প্রতি মাসে তিন দিন সকালে মধু চেটে খাবে, তার বড় ধরনের কোনো রোগ হবে না।’ (ইবনে মাজাহ : ৩৪৪১)। অরজিনাল ব্ল্যাক কালোজিরার তেলের দাম ৭০ মিলি দাম ২১০ টাকা। এছাড়াও বাজারে অনেক রকমের কালোজিরার তেল পাবেন তবে ক্রয় করার পূর্বে দেখে শুনে নিতে হবে। বাজারে অনেক রকমের ভেজাল পণ্য পায় যাই তাই যাচাই করে কিনে নিবেন।

পুরুষাঙ্গে কালোজিরার তেল ব্যবহারের নিয়ম

সম্মানিত পাঠক ভাইয়েরা যারা কালোজিরা তেলের ব্যাপারে কত টুকু জানেন হয়তো জানি না যদি না জেনে থাকেন তাহলে এখন জেনে নিতে পারেন যাদের বিশেষ মুহূর্তে দুর্বল তারা নিয়মিত কালোজিরার তেল ব্যবহার করলে অবশ্যই দুর্বলতা কেটে যাবে। কালিজিরার তেল এ প্রাকিতিক শক্তি আছে তাই এটির জন্য কালিজিরার তেল পুরুষাঙ্গে মাখলে সহজে বীর্যপাত হয় না এবং পুরুষাঙ্গ অনেক বেশি শক্ত হয়।

পুরুষাঙ্গ প্রতিদিন কালিজিরার তেল দিয়ে মালিশ করলে, পুরুষাঙ্গ শক্ত ও মোটা হতে পারে। সবসময় পুষ্টিকর খাবার খান কারন প্রতিদিনের স্বাভাবিক খাবারেই শারীরিক ক্ষমতা ধরে রাখা সম্ভব। হ্যা অবশ্যই মধু ও কালোজিরা তেলে উপকার পাবেন।যারা দির্ঘদিন ধরে হস্তমৈথুন করে পুরুষাঙ্গের আকৃতি ও দ্রুত বীর্যপাত এর সমস্যা ভুগেন তারা হস্তমৈথুন বাদ দেওয়ার পর মধু ও কালোজিরা তেল মালিস করতে পারবে সমস্যা নাই। যেতে দ্রুত সকল সমস্যা দূর হয়ে যাবে এবং ঠিক পূর্বের মতোই সুখ শান্তি পাইবেন।

মধু বা কালোজিরা তেল মালিশ করলে কি হয়

রাতে ঘুমানোর আগে মধু বা কালোজিরা তেল পুরুষাঙ্গে মালিস করবেন ।মাসিল করা কালীন বীর্যপাত করবেন না বা মধু বা কালোজিরা মালিস করাকালীন হস্তমৈথুন করবেন না। আপনি যখন মধু বা কালোজিরা মালিস করবেন তখন পুরুষাঙ্গ গরম হবে হস্তমৈথুন করতে ইচ্ছা করবে কিন্তু করা যাবে না। মধু মালিস করলে লিঙ্গ মোটা ও হতে পারে লিঙ্গের টিস্যু আগের অবস্থায় ফিরিয়ে আসতে পারে সহবাসে অধিক সময় দিবে। এছাড়ও বেশ কিছু গুন বিদ্যমান ।

তবে মনে রাখবেন আপনি যদি অবিবাহিতা হোন তাহলে পুরুষাঙ্গ মধু বা কালিজিরা মালিস করতে বিরত থাকুন। ইহা বিবাহের পর মালিস করবেন এবং স্ত্রী সহবাস করবেন তাহলে কোন সমস্যা হবে না। কেনো না লিঙ্গে মধু বা কালোজিরা মালিস এর পর হস্তমৈথুন করার ইচ্ছা খুবেই জাগবে ফলে বীর্যপাত হলে সব আশা মাটিতে মিশে যাবে কিছুই কাজে লাগবে না। তাই বিবাহের পর পুরুষাঙ্গে মধু বা কালোজিরা মালিস করলে বীর্যপাত করবেন না কিচ্ছুক্ষন পর পুরুষাঙ্গ পরিস্কার করে স্ত্রী মিলন করবেন।

সবশেষে বলতে চাই কালোজিরা তেলের উপকারিতা কি এর উপর যে ট্রথ গুলি শেয়ার করেছি আশা করি অনেক বেশি ভালো লেগেছে এবং অনেক অনেক উপকার হয়েছে। এই রকম তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইটের সাথেই থাকুন এবং জেনে নিন নিত্য নতুন সকল তথ্য। এখন তাহলে নিশ্চই জেনে গেলেন কালোজিরার তেলের উপকারিতা কি কি। আজ বিদায় নিচ্ছি আবার দেখা হবে কথা নতুন কোনো তথ্য নিয়ে সে পর্যন্ত সবাই ভালো থাকবেন সুস্থ থাকবেন নিরাপদ থাকবেন। এতক্ষন আমাদের এই ওয়েবসাইটের সাথে থাকার জন্য অনেক অনেক বিশেষভাবে ধন্যবাদ।

Leave a Comment