পাকা কলার উপকারিতা ও অপকারিতা I Best banana

পাকা কলার উপকারিতা ও অপকারিতা

হ্যালোও ভিউয়ার্স সবাইকে অনেক অনেক ভালোবাসা ও শুভেচ্ছা জানিয়ে আজকের তথ্য টি শুরু করতে যাচ্ছি সেটি হলো পাকা কলা খাওয়ার উপকারিতা ও অপকারিতা। পাকা কলা খাইতে অপছন্দ করে এমন মানুষ দুনিয়াতে খুঁজে পাওয়া খুবই কঠিন। পাকা কলাতে যে কি পরিমান ভিটামিন রয়েছে তা যদি সঠিক তথ্য জানতো তাহলে ভাত সবজির বদলে ৩ বেলায় পাকা কলা খাইতো। আপনি কি জানেন জানেন পাকা কলা খাওয়ার উপকারিতা কি কি রয়েছে যদি না জেনে থাকেন তাহলে আমাদের ওয়েবসাইটে থেকে এখন জেনে নিতে পারবেন।

আরো দেখুন : ভিভো মোবাইল বাংলাদেশ প্রাইস ২০২২

শারীরিক দুর্বলতা কাটানোর খাবার

অপ্পো মোবাইল দাম ২০২২ বাংলাদেশ

কালোজিরা তেলের উপকারিতা কি

মসলার নাম রাঁধুনি কি

পদ্মা সেতু a to z

গোপন ক্যামেরা দাম ২০২২

প্রাচীন বাংলার জনপদ কতটি

ঢাকা থেকে বগুড়া কত কিলোমিটার

ল্যাংড়া আম চেনার উপায়

ঢাকা থেকে নওগাঁ কত কিলোমিটার

সীমান্ত এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী

বর্তমানে লালমনি এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী

সকালে খালি পেটে খেজুর খাওয়ার উপকারিতা

বর্তমানে দ্রুতযান এক্সপ্রেস ট্রেনের সময়সূচী

প্রতিদিন কয়টি লবঙ্গ খাওয়া উচিত

বর্তমানে রসুন খাওয়ার উপকারিতা কী

ওয়াল টাইলস ডিজাইন ২০২২

খুব সহজে হারানো মোবাইল ফিরে পাবেন

পাকা কলার উপকারিতা ও অপকারিতা

পাকা কলার উপকারিতা ও অপকারিতা

কলাতে থাকা ভিটামিন-বি৬ রক্তের গ্লুকোজ নিয়ন্ত্রণ করে এবং টাইপ-২ ডায়াবেটিস প্রতিরোধে সাহায্য করে। আঁশযুক্ত হওয়ায় এই খাবার সহজে হজম হয়। পাশাপাশি এটি হজমশক্তি বাড়ায়। ডায়রিয়া ও পেটের নানা সমস্যা দূরীকরণে একটি উপকারী ও কার্যকর খাবার হল পাকা কলা।

পাকা কলার উপকারিতা

আমরা সবাই কলার সাথে পরিচিত । কলা পছন্দ করে না এমন লোক খুবই কম আছে । এটি এক প্রকার সহজ লভ্য ফল । অন্যান্য ফলের থেকে এটি একটু দামে কম বলে সকল পেশার মানুষ অতি সহজে এই ফল তথা কলা খেতে পারে । কলা খাওয়ার উপকারিতা অনেক । তবে কলার অপকারিতাও আছে । আগে জানব কলা খাওয়ার উপকারিতা । কলা আমাদের শরীরের ক্যালরীর চাহিদা অনেকটা পুরন করে থাকে ।

তাই বেশী বেশী কলা খাওয়া আমাদের জন্য খুবই দরকার বা জরুরী । অতি দরিদ্র মানুষের নাগালের মধ্যে দাম হওয়ায় কম বেশী সবাই ইহা ক্রয় করতে পারে । কলায় আছে ভিটামিন, ক্যালরী, আয়রণ, খনিজ পদার্থ যা আমাদের শরীরের জন্য খুবই উপকারী । দাম কম হলেও মানের দিক থেকে ইহা কমের কিছু নয় । কলায় যেসব উপাদান আছে তা আমাদের শারিরীক গঠনে অনেক সহায়তা আনে।

আরো দেখুন : সেলাই মেশিন দাম ২০২২ 

আকিজ ফ্লোর টাইলস দাম ২০২২

এলজি ওয়াশিং মেশিন দাম ২০২২

কালোজিরার উপকারিতা কি কি I

শার্প ফ্রীজ দাম ২০২২

ওয়াল্টন রুম হিটার দাম ২০২২

হিকভিশন সিসি ক্যামেরা দাম ২০২

এশিয়া সিলিং ফ্যান দাম

সনি স্মার্ট টিভি দাম ২০২২

প্যানাসনিক ওয়াশিং মেশিন দাম ২০২২

ওয়ালটন গ্যাসের চুলা ২০২২

এসিআই সাবমারসিবল পাম্প এর দাম ২০২২

এলইডি টিউব লাইটের দাম ২০২২

ক্লিক ক্রাউন সিলিং ফ্যান দাম ২০২২

বি আর বি সিলিং ফ্যান দাম ২০২২

পাকা কলার অপকারিতা

দেহের শক্তি বাড়াতে কলা খাওয়া খুবই জরুরী । শারীরিক দুর্বলতা দেখা দিলে নিয়মিত কলা খাবেন , এতে করে আপনার শারিরীক দুর্বলতা কেটে যাবে । কলার আরো অনেক গুন যেমন পেট পরিস্কার করে অনায়াসে । এতো গেল উপকারের কথা এবার জানব অপকারের কথা । কলার কিছু অপকারিতার দিক আছে । বিশেষ করে খালি পেটে কলা খাওয়া যাবে না । খালি পেটে কলা খেলে অত্যন্ত এসিডিটি হবে । আর মনে রাখবেন রাতে ঘুমানোর আগে কলা খাওয়া থেকে বিরত থাকবেন ।

টাইলস এর ডিজাইন ও দাম

যমুনা ব্যাংক হেল্পলাইন নাম্বার

গাইবান্ধা জেলা কেন বিখ্যাত

 

পাকা কলায় থাকা প্রচুর পরিমাণে সুগার খালি পেটে দেহের উপর খারাপ প্রভাব ফেলতে পারে। আবার খালি পেটে এই ফল খেলে কোষ্ঠকাঠিন্য হতে পারে। পাশাপাশি খালি পেটে এই খাবার খেলে এর মধ্যে থাকা পটাশিয়াম পেটে এসিডের সৃষ্টি করতে পারে। এছাড়াও খালি পেটে কলা খেলে দেহে ক্যালসিয়াম ও ম্যাগনেসিয়ামের ভারসাম্য নষ্ট হতে পারে। তাই সব সময় নিয়ে করে কলা খেতে হবে। যাতে শরীরের পাশ্বপ্রতিক্রিয়া না হতে পারে। পাকা কলার উপকারিতা ও অপকারিতা I

চাপা কলার উপকারিতা – পাকা কলার উপকারিতা ও অপকারিতা

চাপা কলা বলতে গ্রাম বাংলায় বোঝানো হয় চম্পা কলা কে। এটা শহরে অনেকেই চাপা কলা বলেই চিনে থাকে। এই চাপা কলা অত্যান্ত সুস্বাধু মিষ্টিময় ফল। যে একবার খাইতে সে বার বার খেতে চাইবে। কারণ অন্যান্য কলার থেকে এই চাপা কলাতে বেশি প্রোটিন রয়েছে যা শরীরের জন্য হার গঠনে বেশ উপকারী এবং হজম এবং ওজন হ্রাস করে থাকে। এছাড়াও তবে কলাতে থাকা ম্যাগনেসিয়াম এবং ট্রিপটোফন রাত্রিতে বিশ্রাম নিশ্চিত করতে সহায়তা করতে পারে।
এর মধ্যে প্রচুর পরিমাণে আঁশ থাকায় পেট পরিষ্কার করতে সহায়তা করে।

মস্তিষ্ক সতেজ রাখে ও মানসিক কর্মদক্ষতা বৃদ্ধি করে। কলাতে ভিটামিন বি 6 এবং প্রচুর খনিজ রয়েছে, এটি সাধারণ ফলের চেয়ে অনেক বেশি উপকারী। কেবল কলা নয় এর খোসাও খুব উপকারী। এটি এক সপ্তাহের মধ্যে মুখে ব্রণ ইত্যাদি সৃষ্টি থেকে মুক্তি দেবে। হালকা হাতে তিনবার কলার খোসা আপনার মুখে ঘষুন, কয়েকদিনের মধ্যেই পিম্পলগুলি থেকে মুক্তি মিলবে।

বিচি কলার উপকারিতা ও অপকারিতা

হ্যালোও বন্ধুরা আপনারা কি বিচি কলার নাম শুনেছেন কেউ যদি না শুনে না জেনে থাকেন তাহলে এখন আলোচনা করবো বিচি কলা কি এর উপকার ও অপকার কত টুকু। শরীরের বিভিন্ন ধরনের টিস্যু তৈরি করতে বিচি কলা। বিচি কলার মধ্যে প্রচুর পরিমাণে পটাশিয়াম, আয়রন, ক্যালসিয়াম প্রভৃতি স্বাস্থ্যকর উপাদান থাকার কারণে এটি আমাদের শরীরে বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ উপকারী টিস্যু তৈরি করতে কাজ করে থাকে বিচি কলা অন্যান্য কলার তুলনায় একটু বেশি মিষ্টি হয়ে থাকে। বিচি কলার রয়েছে বিভিন্ন ধরনের পুষ্টিগুণ। পাকা কলার উপকারিতা ও অপকারিতা I

বিচি কলা বাজারে খুব সহজলভ্য দামে পাওয়া যায়। বিচি কলার মধ্যে রয়েছে বিভিন্ন ধরনের ভিটামিন যা আমাদের শরীরের ভিটামিনের চাহিদা পূরণ করবে। শর্করা, পটাশিয়াম, আয়রন, ক্যালসিয়াম ইত্যাদি বিভিন্ন খনিজ পদার্থ রয়েছে বিচি কলার মধ্যে। আর এই উপাদানগুলো আমাদের শরীরের উপকারী টিস্যু তৈরিতে কাজ করে থাকে। আমাদের যাদের শরীরে রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা কম তারা বিচি কলা খেতে পারেন। কারণ বিচি কলা আপনার শরীরে পর্যাপ্ত ভিটামিন সরবরাহ করে আপনার শরীরের রোগ প্রতিরোধ ক্ষমতা বৃদ্ধিতে সাহায্য করবে।

এর পূর্বে শুনেছেন বিচি কলার উপকারিতার কথা তাহলে এখন জেনে নেন অপকারিতার কথা। এই কলার ভিতরে ছোট ছোট বিচি থাকে এই জন্য বলা হয়ে থাকে বিচি কলা। বিচি কলার অপকারিতা নেই বললেই চলে। অতিরিক্ত কোনো কিছুই করা বা খাওয়া ভালো না। তবে বেশি পরিমানে বিচি কলা খেলে আপনার মল ত্যাগ কঠিন সমস্যার সম্মুখীন হতে হবে। পিটার ভিতরের মল কে অনেক শক্তিশালী করে তাই স্বাভাবিক ভাবে মল ত্যাগ করা যায় না। এই বিচি গুলা হজম না হওয়ার কারণে মল ত্যাগের সাথে বের হয়ে যায়। তাই আমাদের অবশ্যই পরিমাণ মতো বিচি কলা খেতে হবে অতিরিক্ত খাওয়া যাবেনা। খালি পেটে তো অবশ্যই বিচি কলা বা অন্য যে কোন ফল খাওয়া যাবে না।

সকালে কলা খাওয়ার উপকারিতা – পাকা কলার উপকারিতা ও অপকারিতা

সকালে কলা খেলে শরীরে শক্তি বৃদ্ধি হয়। তবে খালি পেটে কলা খাওয়া ঠিক নয়। কলা কম বেশি আমরা সবাই খেয়ে থাকি কিন্তু কেউ জানিনা কখন কিভাবে কোন সময়ে কল খাইতে হবে তাই আজ আপনাদেরকেজানিয়ে দিবো সকালে কলা খাওয়ার উপকারিতা কি। কলা পটাশিয়াম সমৃদ্ধ হওয়ায় এই সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে। এছাড়া কলা, মধু দিয়ে তৈরি স্মুদি স্নায়ুর উত্তেজনা কমায়। এ কারণে সুস্থ থাকতে কলার স্মুদি খাওয়ার পরামর্শ দেন বিশেষজ্ঞরা। কোষ্ঠকাঠিন্যের সমস্যা থাকলে : পেট পরিষ্কার না হলে শরীরে নানা সমস্যা দেখা যায়। পাকা কলার উপকারিতা ও অপকারিতা I

সকালের নাস্তায় বিশেষ করে কলা রাখতে পারেন তার সাথে অন্নান্ন খাবার রাখবেন। ওজন নিয়ন্ত্রণ রাখতে নিয়মিত কলা খাইতে পারেন। চাহিদা পূরণে কলা পটাশিয়াম সমৃদ্ধ হওয়ায় এই সমস্যা দূর করতে সাহায্য করে।ক্যালরির চাহিদা মেটাতে সবচেয়ে সহজলভ্য ফল কলা। ফলটিতে থাকা ক্যালরির পরিমাণ ১০০। এছাড়াও এতে রয়েছে খনিজ পদার্থ, ভিটামিন, অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট। যা আমাদের স্বাস্থ্য ভালো রাখতে সহায়তা করে। অনেকেই সকালের নাস্তায় কলা খান। কেউ কেউ আবার দিনের অন্য সময় কলা খান। তবে বিশেষজ্ঞরা সকালেই কলা খাওয়ার পরামর্শ দিয়ে থাকেন।

কলার ক্ষতিকর দিক – পাকা কলার উপকারিতা ও অপকারিতা

প্রিয় বন্ধুরা বেশি পরিমানে কলা খেলে কি কি ক্ষতি হতে পরে তা আজ জানিয়ে দিবো সবাইকে। তাহলে চলুন কি কি ক্ষতি হতে পারে তা জানা যাক একটি কোলাই ১০৫ ক্যালোরি শক্তি থাকে। তাই বেশি কলা খেলে ওজন বৃদ্ধির সম্ভাবনা বেশি থাকে। কলায় টাইরামাইন নামে এক ধরনের উপাদান থাকে কলায় যা মাইগ্রেনের কারণ। তাই যাদের মাইগ্রেনের সমস্যা আছে তাদের কলা না খাওয়াই উত্তম । কলাতে প্রচুর পরিমাণে শর্করা থাকায় বেশি কলা খেলে দাঁতের ক্ষতি হয়। তাই বেশি কলা খাওয়া থেকে বিরত থাকতে হবে।

 

পাকা কলাতে ট্রিপটোফ্যান আমাইনো অ্যাসিড থাকে। এই অ্যামাইনো অ্যাসিডের প্রভাবে মস্তিষ্কের কার্যক্ষমতা হ্রাস পায়। দেহে ক্লান্তি আসে এবং সব সময় ঘুম পায়। কলা অনেক সময়ই অ্যালার্জির কারণ হয়ে থাকে। ঠোঁট ফুলে যায়, গলা জ্বালা করে। যাঁদের শ্বাসযন্ত্রের সমস্যা আছে বেশি মাত্রায় কলা খেলে তা বেড়ে যেতে পারে। এছাড়াও বাজার থেকে কেনা কলার বেশির ভাগই রাসায়নিক পদার্থর সাহায্যে পাকানো হয়ে থাকে তাই কলায় শর্করার পরিমাণ খুব বেশি। এসবের জন্য পেট ব্যথা হতে পারে।

সবশেষে বলতে চাই পাকা কলার উপকারিতা ও অপকারিতা এর উপর যে আলোচনা করেছি আশা করি অনেক অনেক ভালো লেগেছে এবং আপনাদের কলার ব্যাপারে বেশ যথেষ্ট ধারণা হয়েছে। এই রকম তথ্য পেতে আমাদের ওয়েবসাইটে টি নিয়মিত ভিজিট করে আমাদেরকে ধন্য করবেন। আপনাদের ভালো লাগার বিষয় গুলি আমাদের তুলে ধরে কিছু উপকার করতে পারলে আমাদের কে অনেক ধন্য মনে হবে। আজ বিদায় নিচ্ছি আবার দেখা হবে কথা হবে এই রকম তথ্য নিয়ে সে পর্যন্ত সবাই ভালো থাকবেন নিরাপদ থাকবেন আর আমাদের ওয়েবসাইটের সাথেই থাকবেন।

Leave a Comment